ব্র্যাকের ‘নিউরো ডেভেলপমেন্ট ডিজঅ্যাবিলিটি সেন্টার’ পরিদর্শনে প্যারা অলিম্পিকে সোনাজয়ী সাঁতারু

প্যারা অলিম্পিকে নয়বার সোনাজয়ী সাঁতারু এবং ‘অর্ডার অফ অস্ট্রেলিয়া’ সম্মান অর্জনকারী প্রিয়া নারী কুপার গত সোমবার (২৯ জানুয়ারি) বনানীর কড়াইল বস্তিতে ব্র্যাকের কিশোর-কিশোরী উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) ‘নিউরো ডেভেলপমেন্ট ডিজঅ্যাবিলিটি সেন্টার’ পরিদর্শন করেন।

প্রিয়া কুপার এ বছরের ‘অস্ট্রেলিয়া ডে’তে অংশ নিতে বাংলাদেশে এসেছেন। ব্র্যাক এবং অস্ট্রেলিয়ার ডিপার্টমেন্ট অফ ফরেন অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড ট্রেড (ডিফ্যাট) যৌথভাবে কড়াইলে তাঁর এই পরিদর্শনের আয়োজন করেন। এসময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন ব্র্যাকের শিক্ষা কর্মসূচির প্রধান প্রফুল্ল¬ চন্দ্র বর্মণ এবং ডিফ্যাট বাংলাদেশের ফার্স্ট সেক্রেটারি অ্যাঞ্জেলা নওম্যান এবং বাংলাদেশ হুইলচেয়ার ক্রিকেট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা ও অধিনায়ক মোহাম্মদ মোহসিন।

প্রিয়া কুপার সুবিধাবঞ্চিত মেয়েদের সঙ্গে কিছু সময় কাটান।  তিনি বলেন ‘অনেক বাধা সত্ত্বেও এই সুবিধাবঞ্চিত মেয়েরা যে জীবনে সফলতা অর্জনের জন্য ঠিক আমার মতই লড়াই করে যাচ্ছে, এটি দেখে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। যথাযথ দিকনির্দেশনা এবং সহায়তাই পারে তাদের ভবিষ্যত নিজেদেরই গড়ে নেবার সুযোগ করে দিতে। তাদের মাধ্যমে সমৃদ্ধ হবে বাংলাদেশেরও ভবিষ্যত।’ 

ছোটবেলা থেকে সেরিব্রাল পালসিতে আক্রান্ত প্রিয়া কুপার তাঁর পুরো ক্যারিয়ার জুড়ে এবং এখনও শারীরিক প্রতিবন্ধীদের বিভিন্ন খেলাধুলায় অংশ নিতে উৎসাহ প্রদান করে আসছেন। ২০১৭ সালে তিনি ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার ‘ডিজঅ্যাবিলিটি সার্ভিস কমিশন’-এর সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পান।

আমাদের কর্মস্থল

                

ব্র্যাক কুইজ

কোনটি দারিদ্র্য দূরীকরনের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি কার্যকরী?

বিকল্প যোগাযোগ পন্থা